ঘুরে দাঁড়ানোই সারকথা

0
2

ঘুরে দাঁড়ানোই সারকথা

সহস্র বেদনাধারা অন্তিম কফিনে,
দুর্গম গিরি, কষ্টের গিরিখাত মাড়িয়ে
অর্জনের চূড়ায় পৌঁছানো কঠিন বটে;
তবু্ও দুঃসহ বেদনার পর্বতভূম
পদতলে রাখার যাত্রায়, দেশান্তরে
পথান্তরে ছুটছে সংশপ্তক, অকপটে।

নীলাভ স্বপ্ন, পুর্ণিমার বিকিরণ যদিও
ঝলসানো রুটির রূপ নেয় শতবার,
আলোর ফল্গুধারার স্থান কেড়ে নেয়
চেপে থাকা অশ্রুর অগ্ন্যুৎপাতে;
আপন হস্ত, আপন বাহু কিংবা হৃদয়
অচিন অঙ্গের মতো, করছে বিদ্ধ
এ কী অস্বাভাবিকতা না স্বতঃসিদ্ধ?
বিদীর্ণ অন্তঃকরণ দেখে রক্তক্ষরণ!

যেন বারবার ব্যর্থ হয়েও পুনপ্রচেষ্টায় বৃষ্টিস্নাত বৃক্ষের চুড়ায় ওঠার প্রত্যয়ে,
ছন্দ, লয় তালের বন্ধাত্বের মাঝেও
অবিরত কালি ও কলমের অন্ত্যমিল;
তলানি থেকে উঠে আসার নিরন্তর,
দুর্নিবার, অনিবার্য সংগ্রাম সহস্র-
মিশে যায় ঘর্মাক্ত সহাস্য বদন।

মৃত্যর পূর্বে বেঁচে থাকার প্রত্যাশায়
বারবার খাদের মুখে পড়েও,
বারবার পিছলে পড়ার মুহূর্তেও-
শেষবার ঝর্ণাচূড়ায় প্রসারিত বাহুদ্বয়
যেন প্রতিটি ভ্রমণপিয়াসির ঘুরে দাঁড়ানোয়,
প্রতিটি নৈঃশব্দ উল্লাসের ঝংকারে
বিমুগ্ধ করুক সহস্র স্পর্শিত স্বজনকে,
বিজয়, দিগ্বিজয়ে, ঘুরে দাঁড়ানোর সমাপনে।

—-

মোঃ নাজিম উদ্দিন
০৩ সেপ্টেম্বর ২০২০

(ছবিটি ২০১৬ সালের, খৈয়াছড়ার শেষে নাপিত্তাছড়ায় ঝর্ণার পাদদেশে..)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here